রায়পুরে সাবেক সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের গণসংযোগ : উজ্জীবিত নেতা কর্মীরা
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » রায়পুরে সাবেক সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের গণসংযোগ : উজ্জীবিত নেতা কর্মীরা


বুধবার ● ৬ জুন ২০১৮

---মোঃ আজম : লক্ষ্মীপুর-২ ( রায়পুর) আসন থেকে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হারুনুর রশীদ এবার নিজ উদ্যেগেই মাঠে নেমেছেন।

উপজেলার প্রত্যেক ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ডের নেতা কর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়,আলোচনা সভা,সাংগঠনিক দিক নির্দেশনাসহ নিজস্ব উদ্যেগে অসহায় গরীব দুখীদের মাঝে ঈদবস্ত্র বিতরণ কাজে ব্যাস্ত থাকতে দেখা যাচ্ছে। ইতোমধ্যে রায়পুর উপজেলার ৯নং দক্ষিন চর আবাবিল,১নং উত্তর চর আবাবিল,৩নং চর মোহনা,১০নং রায়পুর ইউনিয়ন,৪নং সোনাপুর, ৭নং বামনী,৬নং কেরোয়া ইউনিয়ন,৫নং চরপাতা ও ৮নং দক্ষিন চরবংশী ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মী ছাড়াও সকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেম্বার বা ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের সাথে মিলিত হচ্ছেন। ---হারুনুর রশীদের এই গণসংযোগে স্থানীয় নেতা কর্মী এবং সাধারণ সমর্থকদের মাঝে হারিয়ে যাওয়া প্রাণচাঞ্চল্য পূণরায় ফিরে আসছে বলে অনেকে অভিমত প্রকাশ করেছেন। উল্লেখ্য, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এই আসনে আওয়ামীলীগের একাধিক মনোয়ন প্রত্যাশী বর্তমানে মাঝে মধ্যে এলাকায় এসে ভোটারদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় এবং আওয়ামীলীগের উন্নয়ন সম্পর্কে অবগত করে আবারও নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার জন্য সকলকে আহ্বান করছেন। আওয়ামীলীগের মনোয়ন প্রত্যাশী ডাঃ জগলুল, কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল, এডঃ সালাহ উদ্দিন রিগ্যান, সামছুল ইসলাম পাটাওয়ারী, বাকিন ভূঁইয়া, জোট সরকারের বর্তমান সাংসদ মোঃ নোমান (জাপা) মাঠে প্রচার প্রচারনা করলেও দলের টানে অনেক কে অভিনন্দন জানাতে দেখা গেলেও সাধারণ ভোটার বা সমর্থকদেরকে তেমন উৎফুল্ল হতে দেখা যায় নি। অপরদিকে বর্তমানে হারুনুর রশীদের গণসংযোগে সর্বস্তরের মানুষের মাঝে একপ্রকার আনন্দ উল্লাস কাজ করতে দেখা যাচ্ছে। দলের সর্বস্তরের নেতা কর্মীদের সতস্ফুর্ত অংশগ্রহনে হারুনুর রশিদের সফর সঙ্গী হতে উপজেলা আওয়ামীলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন নেতা কর্মীদেরকেও দেখা যাচ্ছে। প্রকাশ থাকে যে ১৯৯৬ সালের জাতীয় সংসদের উপনির্বাচনে লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন হারুনুর রশীদ। এসময় তিনি অবহেলিত রায়পুর জনপদে রাস্তা ঘাট,ব্রিজ কালভার্ট,মসজিদ মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন উন্নয়নমুখী কর্মকান্ডে ব্যাপক আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে চলে আসেন। ২০০১ এর নির্বাচনে সারাদেশে আওয়ামীলীগের বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসলেও সেই সময়কার নির্বাচনে নিজ দলীয় কোন্দলের কারণে সাংসদ হারুনুর রশীদকে পরাজয় বরণ করে নিতে হয়। আর এই সুযোগে বিএনপি সরকার আওয়ামীদলের নেতা কর্মীদেরকে বিভিন্ন মামলা হামলায় পরাস্ত করে রাখলে নেতা কর্মীরা অনেকটা এলোমেলো হয়ে যায়। সেই থেকে এখানে পূনরায় আর দল গুঁছিয়ে উঠতে পারে নি আওয়ামীলীগ। তৃণমূলে নেতা কর্মীদের মাঝে ক্ষোভ অসন্তোষ আর উদ্বেগ উৎকন্ঠার মধ্যে দিয়ে এই আসনে আওয়ামীলীগের নিজস্ব প্রার্থী নির্বাচনে আওয়ামীলীগ অনেকটা ব্যার্থতার পরিচয় দেয়। সামনে আগত সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর-২ আসন থেকে আবারও হারুনুর রশীদ প্রার্থী হয়ে বিজয়ের মালা বরণ করে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে,রাস্তা-ঘাট, হাট বাজার,বিদ্যুৎ গ্যাস এর চাহিদা মিটিয়ে রায়পুরকে সু-সজ্জিত করবেন বলে প্রত্যাশা করছেন রায়পুরের সর্বস্তরের জনগন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬:১৭:৩৩ ● ৯৯২ বার পঠিত



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)



আরো পড়ুন...