রায়পুরে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ
প্রথম পাতা » রায়পুর টুকিটাকি » রায়পুরে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ


শনিবার ● ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

---

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার রাখালীয় গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মিথ্যা চুরি ও মারামারির মামলা দিয়ে নিরীহ লোকদের হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওই মামলায় একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ভুয়া এক্স-রে রিপোর্ট ও ডাক্তারি পরিক্ষার জাল কাজপত্র বিজ্ঞ আদালতে জমা দিয়ে এ মামলাটি করা হয়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার সকালে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষেও এ ব্যাপারে প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। এতে একই গ্রামের মুকবুল আহাম্মদ চৌধুরীর ছেলে ইসমাইল হোসেন মিঠু চৌধুরীকে অভিযুক্ত করা হয়।

অভিযোগ সূত্রে ও মামলার আসামি জাকির হোসেন চৌধুরীসহ কয়েকজন সাংবাদিকদের জানান, একই বাড়ীর মিঠু চৌধুরী সাথে দীর্ঘদিন থেকে আমাদের একটি ফসলি জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। মিঠু আমাদের ওই সম্পত্তি আত্মসাতের উদ্দেশে নানা ধরনের মিথ্যাচার করছেন এবং ওই সম্পাত্তির কিছু কাজপত্র দেখার নাম করে নিয়ে যায়।

সম্পত্তির ওই কাজপত্র চাইলে মিঠু চৌধুরী সম্প্রতি মিথ্যা চুরি, মারামারি ও হুমকির ঘটনা সাজিয়ে লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আমি ও আমার কলেজ পড়ুয়া ছেলে জৌতি হোসেনসহ ৭ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। কিন্তু ঘটনাটি আমাদের জানা নেই। পরে জানতে পারি রায়পুর পদ্মা ডায়াগনষ্টিক এন্ড কনসালটেন্ট সেন্টার থেকে তাঁর ডান হাত ভেঙ্গে গিয়েছে বলে একটি ভূয়া এক্স-রে রিপোর্ট ও ডাক্তারের পরীক্ষার কাজ জাল করে আদালতে জমা দিয়ে এ মামলা করেন।

পরে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গিয়ে এসবের কোন হদিছ পাওয়া যায়নি এবং সব ভুয়া ও জাল বলে প্রমানিত হওয়ায় কর্তৃপক্ষ একটি প্রত্যায়ন পত্র দিয়ে থাকেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইসমাইল হোসেন মিঠু চৌধুরী বলেন, এটি জমি সংক্রান্ত ও পারিবারিক বিষয়। আদালতে দেওয়া মামলাটি সঠিক বলেই তিনি দাবি করেন এবং কোন ভূয়া ও জাল কাগজ জমা দেওয়া হয়নি। সবই সরকারি হাসপাতালে রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০:৩০:১৯ ● ৩৬৭ বার পঠিত



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)



আরো পড়ুন...