দূরন্ত শৈশব আর এক মুঠো রোদ্দুরে
প্রথম পাতা » ফটো গ্যালারি » দূরন্ত শৈশব আর এক মুঠো রোদ্দুরে


বৃহস্পতিবার ● ১১ জানুয়ারী ২০১৮

---‘আপদ আছে, জানি আঘাত আছে,তাই জেনে তো বক্ষে পরান নাচে-পথে চলার বিধিবিধান যাচা। আয় প্রমুক্ত,আয় রে আমার কাঁচা। চির যুবা তুই যে চিরজীবী,জীর্ন জরা ঝরিয়ে দিয়ে প্রাণ অফুরান…. (রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)---

আমাদের অনেকেরই শৈশব আর কৈশোর কেটেছে পল্লী গ্রামের ছায়া সুনিবিড় শান্তির নীড়ে । একটু একটু করে বেড়ে উঠেছি গ্রামের ফুল-ফসলে, কাদা-মাটি-জলে । এখন যেমন ব্যস্ত নগরীতে ব্যস্ত জনপদে ব্যস্ত এই আমি ইট-কাঠ-পাথরের চার দেয়ালের মাঝে সারাদিন আবদ্ধ । কোথাও যেন একটু আকাশ দেখবার অবকাশ নেই, সুযোগ নেই ইচ্ছে করলেই অঝোর শ্রাবনে ভেজার কিংবা যখন তখন হুটহাট করে নদীতে ঝাপিয়ে পড়ার । আমার শহরে সেই খোলা আকাশ নেই, নদী তো এখানে স্বপ্নবিলাস । কিন্তু আজও আমি সেই খোলা বাতাস চাই, বদ্ধ ঘরে এসির বাতাসে আমার প্রাণ জুড়ায় না । তবুও জীবিকার তাগিদে কিংবা জীবনের প্রয়োজনে আমি এই প্রাণহীন নগরের নাগরিক । শৈশব-কৈশোর তো সেই কবেই চলে গেছে, চাইলেও আর ফিরে পাবোনা । তবুও এই ছবিগুলো যখন দেখি, মনের অজান্তেই যেন স্বপ্নের মত কাটানো সেই দিনগুলোকে ফিরে পাই । দেখুন তো আপনারা আপনাদের শৈশব-কৈশোর এর দিনগুলি এই ছবিগুলোর মাঝে খুঁজে পান কিনা, যদি পেয়ে যান তবে মানতে হবে অসাধারণ সব মুহুর্তের সাক্ষী আপনার ছেলেবেলা।---

প্রান অফুরান” দূরন্ত শৈশব আর এক মুঠো রদ্দুরের মাঝে এই ছবি গুলো তুলেছেন রায়পুর নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম’র স্টাফ রিপোর্টার আজহারুল ইসলাম রাকিব । ছবির লোকেশন ৬নং কেরোয়া ইউনিয়ন রায়পুর ( লক্ষ্মীপুর)

বাংলাদেশ সময়: ২১:২৬:৪০ ● ১০৪৫ বার পঠিত



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)



আরো পড়ুন...